করোনা মহামারির মধ্যে দিয়েই কেটেছে ২০২০ সালের অধিকাংশ সময়। এবার আশা করা যায়, ২০২১ সালে তার পুনরাবৃত্তি হবে না। বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া (বিসিসিআই) আপ্রাণ চেষ্টা করছে যাতে, এ বছরের ক্রিকেট সূচী সুষ্ঠুভাবে আয়োজন করা যায়। এর মধ্যে একদিকে যেমন রয়েছে ঘরোয়া ক্রিকেট, তেমনি রয়েছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল)। এখনও পর্যন্ত যা পরিস্থিতি, তাতে আইপিএল ২০২১ ভারতে অনুষ্ঠিত হবে বলেই ঠিক করা হয়েছে। তবে কোভিড পরিস্থিতির উপর নির্ভর করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। অর্থাৎ ভারত হোক বা ভারতের বাইরে, আইপিএল ২০২১ অনুষ্ঠিত হচ্ছেই, সে বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই।

তাই এর মধ্যেই টুর্নামেন্ট আয়োজনের কাজ শুরু করে দিয়েছে বিসিসিআই। প্রয়োজন হলে, গত বছরের মতো এবারের টুর্নামেন্টও ইউনাইটেড আরব এমিরেটসে (ইউএই) আয়োজন করতে বিসিসিআইয়ের কোনো আপত্তি নেই। আইপিএল ২০২০ সেপ্টেম্বর মাসের ১৯ তারিখ থেকে নভেম্বর মাসের ১০ তারিখ পর্যন্ত মধ্যপ্রাচ্যের এই দেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত বছরের আইপিএল অন্যান্যবারের মতো ভারতে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। যদিও কোভিড মহামারির কারণে টুর্নামেন্টটি ভারতে আয়োজন করা যায়নি। প্রায় ছয় মাস স্থগিত থাকার পর আরবের মাটিতে টুর্নামেন্ট শুরু হয়।

ফেব্রুয়ারি মাসের ১১ তারিখে হতে পারে আইপিএল ২০২১-এর নিলাম

রিপোর্ট অনুযায়ী, সম্প্রতি অনুষ্ঠিত আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের বৈঠকে আইপিএল ২০২১ নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই মিটিংয়ের পর ট্রেডিং উইন্ডো খুলে দেওয়া হয়েছে। জানুয়ারি মাসের ২১ তারিখের মধ্যে খেলোয়াড়দের রিলিজ করতে হবে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলিকে। রিপোর্ট থেকে আরও জানা গিয়েছে, ১১ ফেব্রুয়ারি একটি মিনি অকশন অনুষ্ঠিত হতে পারে। এর আগে সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট থেকে জানা গিয়েছিল, একটি সম্পূর্ণ নিলাম আয়োজনের পরিকল্পনা নিয়েছে বিসিসিআই। তবে সময়ের অভাবের কারণে এবার একটা মিনি অকশনের মধ্যেই সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া সীমাবদ্ধ রাখা হবে। ২০২১ সালের ১০ জানুয়ারি থেকে শুরু হতে চলা সৈয়দ মুস্তাক আলি ট্রফির উপর আইপিএলের অনেক কিছু নির্ভর করছে। মুম্বই মিরর পত্রিকায় প্রকাশিত এক বোর্ড কর্তার বক্তব্য, কীভাবে আমরা আইপিএল ২০২১ এর আয়োজন করব, সেটা অনেকটাই নির্ভর করছে সৈয়দ মুস্তাক আলি ট্রফির কীভাবে আয়োজন করা হয়।

প্রসঙ্গত, এই টুর্নামেন্টের হাত ধরেই ভারতে করোনা পরবর্তী পর্যায়ে শুরু হচ্ছে ঘরোয়া ক্রিকেট। এই টুর্নামেন্টে শিখর ধাওয়ান, সুরেশ রায়নার মতো তারকা ক্রিকেটাররা অংশগ্রহণ করবেন। ম্যাচগুলি অনুষ্ঠিত হবে চেন্নাই, ইন্দোর, বরোদা, ব্যাঙ্গালোর, কলকাতা এবং মুম্বইয়ে। নকআউট পর্বের ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে আহমেদাবাদে। এই টুর্নামেন্টে ভালো খেলে নির্বাচকদের দৃষ্টি আকর্ষণে সচেষ্ট হবেন ক্রিকেটাররা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here