ফ্যান ফলোয়িংয়ের দিক থেকে কোনো ভারতীয় ক্রিকেটার যদি এগিয়ে থাকেন, তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক এমএস ধোনি। তাকে ঘিরে সর্বদা ক্রিকেটপ্রেমীদের প্রবল আগ্রহ। টেলিভিশনের পর্দায় ধোনিকে দেখা মাত্রই দর্শকরা খুশি হন। ২০১৯ সালের জুলাই মাসের পর থেকে ধোনিকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দেখা না গেলেও তিনি লাইমলাইটে রয়েছেন। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে তার অবসর নিয়ে প্রবল জল্পনা তৈরি হয়। অবশেষে, গত বছরের ১৫ আগস্ট তিনি অবসর ঘোষণা করেন। তবে মাহির ব্র্যান্ড ভ্যালু এবং মোট সম্পদের পরিমাণ ক্রমশ বাড়ছে। অনেক ব্র্যান্ডের হয়ে মাহিকে বিজ্ঞাপনে দেখা যাচ্ছে। ধোনি ছাড়াও তার ছোট্ট মেয়ে জিভা সম্পর্কেও দর্শকদের মধ্যে প্রবল আগ্রহ রয়েছে। জিভার বয়স মাত্র ৫ হলেও এর মধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তার বিশাল ফলোয়ার্স তৈরি হয়েছে। ইনস্টাগ্রামে তার ১.৮ মিলিয়ন ফলোয়ার্স রয়েছে। প্রতিটি পোস্টে লক্ষ লক্ষ লাইক, কমেন্ট দেখা যায়। যদিও তার এই ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট সামলান খোদ এমএস এবং তার স্ত্রী সাক্ষী ধোনি।
সোশ্যাল মিডিয়ায় হয়তো এই বিপুল জনপ্রিয়তার কারণেই এবার বাবা ধোনির সাথে তাকে একটি বিজ্ঞাপনে দেখা যাবে বলে জানা গিয়েছে। ওরিও বিস্কুটের বিজ্ঞাপনে বাবা-মেয়েকে দেখা যাবে। সংস্থার তরফ থেকে তাদের অফিশিয়াল ট্যুইটার হ্যান্ডলের মাধ্যমে এই ঘোষণা করা হয়েছে। বিজ্ঞাপনের একটি দৃশ্যের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেও ধোনির সম্পদের পরিমাণ কমেনি। সেলিব্রিটি নেট ওয়ার্থের প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন অনুযায়ী, ভারতের প্রাক্তন অধিনায়কের মোট সম্পদের মূল্য প্রায় ১৭০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। আইপিএলের প্রতি মরসুমে চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে খেলার জন্য ১৫ কোটি টাকা করে পারিশ্রমিক পান ধোনি। উদ্বোধনী মরসুম থেকেই আইপিএলে চেন্নাইয়ের হয়ে খেলে চলেছেন এমএস ধোনি। তবে ২০১৬ এবং ২০১৭ সালে তিনি রাইজিং পুণে সুপারজায়ান্টসের হয়ে খেলেছেন। ক্রিকট্র্যাকারের একটি প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে, ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ থেকে এখনও পর্যন্ত ১,৩৭,৮৪,০০,০০০ টাকা রোজগার করেছেন মাহি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here